পাকিস্তান সফরের জন্য শ্রীলঙ্কার দল গোছানো শেষ। ১০ সিনিয়র ক্রিকেটার সরে দাঁড়ানোর পর টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডের অধিনায়কও ঘোষণা করা হয়ে গেছে। কিন্তু শ্রীলঙ্কান দলের ওপর সম্ভাব্য সন্ত্রাসী হামলার হুমকিতে শঙ্কায় পড়ে গেলো এই সফর।

করাচি ও লাহোরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির সিরিজ খেলতে পাকিস্তানের বিমান ধরতে আর দুই সপ্তাহও হাতে নেই। ২৭ সেপ্টেম্বর করাচিতে হবে প্রথম ওয়ানডে। কিন্তু পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে আবার ভাবতে হচ্ছে।

এই সফর আসলেই নিরাপদ হবে কিনা, সেই প্রশ্ন তৈরি করলো অনিশ্চয়তা। ২০০৯ সালে পাকিস্তান সফরে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছিল শ্রীলঙ্কা দল।

এর আগে পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে দেশটি সফরের সবুজ সংকেত দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। তবে নতুন হুমকির বার্তায় ভীতিকর পরিবেশ তৈরি হয়েছে।

সরকারের কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার পর পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পুনর্মূল্যায়নের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। এক বিজ্ঞপ্তিতে দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে তারা।

করাচিতে আগামী ২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ও ৩ অক্টোবর হবে তিনটি ওয়ানডে। লাহোরে হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ, যা শেষ হবে ৯ অক্টোবর।