আবারও মাস্ক পরার পরামর্শ দিলাে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

0
25
how-to-use-mask

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে জনসমাগমের জায়গায় বের হওয়ার সময় মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। যদিও কিছুদিন আগে ‘সুস্থ ব্যক্তি ফেস মাস্ক পরতে হবে, এ নিয়ে যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ নেই’ বলে জানিয়েছিলো বিশ্ব সংস্থাটি। এবার সেই বক্তব্য থেকে সরে এলো তারা।

নতুন এক গবেষণায় সম্ভাব্য কোভিড-১৯ রোগীর মাধ্যমে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে মাস্ক বাধা সৃষ্টি করতে পারে বলে দেখা গেছে। এক প্রতিবেদনে আজ ৬ জুন, এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

যদিও করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ঘরের বাইরে বের হলেই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করেছে বিশ্বের বহু দেশ। এই বিষয়ে শুরুতে দ্বিমত পোষণ করে ডব্লিউএইচও জানিয়েছিল, সুস্থ মানুষের মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই। এছাড়াও করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি ও যারা কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিত থাকবে, তাদের জন্য মেডিকেল মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছিলো সংস্থাটি।

এছাড়া জনসমাগমস্থলে সকলকে কাপড়ের বা সুতার তৈরি মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তারা। বিশেষ করে গণপরিবহণ, বাজার ও শরণার্থী শিবিরে মাস্ক পরে সুরক্ষা নিশ্চিত করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ডব্লিউএইচও’র রোগতত্ত্ববিদ মারিয়া ভ্যান কারকভ বলেন, ‘আমরা সব দেশের সরকারকে পরামর্শ দিচ্ছি, যাতে তারা সাধারণ মানুষকে মাস্ক পরার জন্য উদ্বুদ্ধ করে।’

করোনাভাইরাসের ঝুঁকি কমাতে ফেস মাস্ক পরাকে শুধুমাত্র একটি উপায় হিসেবে উল্লেখ করে বিশ্ব সংস্থাটি আরো জানায়, শুধু মাত্র ফেস মাস্ক পরলেই যে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি কমবে, তা নয়। এর জন্য আরো অন্যান্য সতর্কতাও অবলম্বন করতে হবে।